স্মার্টফোনের “ফোন মেমোরি ফুল” হয়ে গেলে কি করবেন? – 2021

ফোন মেমোরি ফুল - phone memory full

স্মার্টফোন বা অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ফোন মেমোরি ফুল হয়ে যাওয়া একটি কমন সমস্যা। ফোন মেমোরি ফুল হয়ে যাওয়া বিষয় টি আমাদের ব্যবহারের উপর নির্ভর হয়ে থাকে। আমাদের প্রতিনিয়ত ফোন ব্যবহারের বিভিন্ন বিষয়ের উপর ভিত্তি করে ফোন মেমোরি স্টোরেজ টি কমতে থাকে আর এক সময় গিয়ে দেখা যায় আর কোন অ্যাপ ইন্সটল হয় না।

ফোন মেমোর ফুল হওয়া সমস্যাটি সাধারণত যাদের ফোন মেমোরি স্টোরেজ কম হয়ে থাকে তাদের হয়ে থাকে কারণ আমাদের ফোন টা এতো দামীও না সেই জন্য স্টোরেজ ও বেশি দেওয়া থাকে না। কিন্তু আমরা চাইলে আমাদের ফোন মেমোরি করে অপটিমাইজ করে ফাঁকা জায়গা বের করতে পারি। অনেক ব্যবহারকারী আছে যারা ফোন মেমোরি কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলো ফলো করে না যা করলেই তাদের ফোনে মেমোরির অনেক স্পেস বের হয়ে যাবে।

স্মার্টফোন বা অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলের ফোনে মেমোরি ফুল হয়ে গেলে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দেয় তার মধ্যে অন্যতম একটি সমস্যা হলো মোবাইল টি স্লো হয়ে যাওয়া । তাই আজকে এই আর্টিকেল আমি দেখাব কিভাবে আপনার ফোনের ফোন মেমোরি কে ক্লিন রাখতে পারেন।

ফোন মেমোরি ফুল হয়ে গেলে করণীয়

আমি নিচে কিছু টেকনিক বা টিপস এন্ড ট্রিক বলব যেই গুলো ব্যবহার করে আমি ফোনের মেমোরি টা ক্লিন রাখি বা স্পেস ফ্রি রাখি। এই পদ্ধতি গুলো আশা করি আপনারও কাজে দিবে। প্রত্যেক টি পয়েন্ট এ আমি বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করব।

১। অপ্রয়োজনীয় ফাইল মুভ বা ডিলিট করা

মোবাইল ব্যবহারকারীর একটি দেখা যায় অনেক প্রয়োজনীয় ফাইল গুলো ডাউনলোড করে রাখে বা কোন জায়গা থেকে নিয়ে রাখে কিন্তু কাজ শেষ হওয়ার পর তা ডিলেট করে না তাই সেটি ডিফল্ট লোকেশন যেহেতু ফোন স্টোরেজ থাকে তাই স্পেস খেয়ে রাখে। আপনার ডাউনলোড ফোল্ডার বা অন্য কোথায় এমন কোন ফাইল যদি থাকে যেটার আপনার লাগবে না সেই গুলো ডিলিট করুন এবং যেটা লাগবে সেটা ফোন মেমোরি থেকে মুভ করে SD Card অর্থ্যাৎ মেমোরি রাখুন।

২। Cache & Junk File ডিলিট

আমাদের হাতের স্মার্টফোন বা অ্যান্ড্রয়েড ফোন টি তি বিভিন্ন কিছু ব্যবহারের সময় কিছু টেম্পোরি ফাইল তৈরী হয় যেই গুলো ফোন মেমোরি তে একটা জায়গা খেয়ে বসে থাকে সেই জন্য এই ফাইল গুলো আমাদের ডেইলি ডিলিট করা প্রয়োজন এর জন্য বিভিন্ন মোবাইলে Cleaner  রয়েছে আপনার মোবাইলে যদি না থাকে প্লে স্টোর থেকে Junk & Cache ফাইল ডিলিট করার সফটওয়্যার টি ডাউনলোড করে নিন। আর আমরা মতো যদি আপনি শাওমি ফোন ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন তাহলে তো হয়ে গেল Setting>about phone > storage > cleaner পেয়ে যাচ্ছেন।

৩। Cache File ক্লিন করুন

আমাদের অনেকের মোবাইলের স্টোরেজ সেটিং এ আমরা আলাদা করে একটি Cache ক্লিন করার অপশন পেয়ে থাকেন সেটি ব্যবহার করে ক্যাচ ফাইল ডিলিট  করুন। আমি যেহেতু শাওমি মোবাইল ব্যবহার করে তাই এটি থেকে কিভাবে Cache ডিলিট করবেন তা দেখাচ্ছি। প্রথমে Setting থেকে About Phone তারপর Storage এ যান এখন এখানে Cached Data ক্লিক করে ক্লিয়ার করে দিন তারপর দেখবেন অনেক জায়গা বের হবে । এটি প্রতিদিন বা কয়েকদিন পর পর করতে পারেন।

ফোন মেমোরি ফুল - Cached Data

৪। অ্যাপ ডাটা ক্লিয়ার

আমরা যে সব অ্যাপ গুলো ব্যবহার করে থাকি সেই অ্যাপ গুলোর বিভিন্ন ডাটা গুলো মেমোরি তে জমা থাকে আর এই গুলো এক সময় অনেক পরিমাণ জায়গা খেয়ে বসে থাকে। তাই ফোন মেমোরি ফুল হওয়ার পিছনে অ্যাপ ডাটার ও হাত থাকে। আমাদের উচিত বিভিন্ন অ্যাপ স্টোরেজ এর দিকে খেয়াল রাখা যেই সব অ্যাপ স্টোরেজ বেশি খাচ্ছি ঐ গুলোর ডাটা মাঝে মাঝে ক্লিয়ার করা। আমরা যেকোন অ্যাপের App Info তে ক্লিক করলে ডিটেইলস দেখতে পাবো স্টোরেজ থেকে। যেমন ফেসবুক অ্যাপ অনেক পরিমাণে ক্যাচ ডাটা স্টোর করে সেটি দেখার জন্য অ্যাপের উপর চেপে ধরে App Info তে ক্লিক করুন অথবা অ্যাপ ম্যানেজমেন্ট থেকে অ্যাপের সেটিং এ যান।

এখানে নিচের স্ক্রিনশট খেয়াল করে দেখুন আমাদের ফেসবুক অ্যাপ টি মাত্র কয়েক মেগাবাইটের কিন্তু সেটা স্টোরেজ এর 716 MB দখল করে আছে।

app storage - ফোন মেমোরি

এটি ক্লিয়ার করতে Storage এ ক্লিক করুন, এখন দেখতে পাবেন আসল অ্যাপ সাইজ কত Cache কত টুকু রয়েছে ইত্যাদি। এখান থেকে Clear স্টোরেজ দিয়ে দিন।

App data clear

এই রকম বিভিন্ন অ্যাপের ডাটা গুলো ফোন মেমোরি তে অবস্থান করে যান ফলে দেখা যায় মেমোরি তে তেমন কিছুই নেই কিন্তু ফোন মেমোরি ফুল দেখাচ্ছে। তাই বিভিন্ন অ্যাপের ডাটা স্টোরেজ টি পর্যবেক্ষণ করে ক্লিয়ার করুন।

নোটঃ শুধু মাত্র যেই গুলো অ্যাপ সেই গুলোর ডাটা ক্লিয়ার করবেন তাছাড়া গেম এর ডাটা ক্লিয়ার করলে সেই গেম এর ফাইল মিসিং হতে পারে। ধরুণ আপনি পাবজি মোবাইলের ডাটা ক্লিন করলেন তাহলে কিন্তু আপনার গেমের ফাইল চলে যাবে তা আবার নতুন করে ইন্সটল লাগবে।

৬। অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ আনইন্সটল

আমাদের অনেকের ই এক টা  অভ্যাস আছে কোন অ্যাপ ব্যবহার করার পরবর্তীতে আর লাগে না সেই অ্যাপও ইন্সটল করে রেখে দেয় এর ফলে ফোন মেমোরি তে জায়গা খেয়ে বসে থাকে ঐ অ্যাপ। তাই ফোন মেমোরি ফুল হয়ে থাকলে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ গুলো আনইন্সটল করুন এতে কিছু টা ফোন স্টোরেজ স্পেস বেড়ে যাবে।

৭। লাইট ভার্সন অ্যাপ ব্যবহার

আপনার ফোন মেমোরি যদি খুবই কম হয়ে থাকে তাহলে আপনার উচিত বিভিন্ন অ্যাপ গুলোর লাইট ভার্সন থাকে এই অ্যাপ গুলো ব্যবহার করা। এই অ্যাপ গুলো স্টোরেজ খুব কম দখল করে তাই লাইট অ্যাপ গুলো ব্যবহার করুন যেমন ফেসবুক অ্যাপ এর পরিবর্তে ফেসবুক লাইট অ্যাপ টি ইউজ করতে পারেন।

৮। ডাউনলোড সেটিং পরিবর্তন

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড ফোন গুলোর ডিফল্ট ডাউনলোড লোকেশন থাকে ফোন স্টোরেজ সেটি সেটিং থেকে এক্সটার্নাল স্টোরেজ করে দিয়েন এর ফলে যেই জিনিস গুলো ডাউনলোড করবেন সেই গুলো ফোন মেমোরি তে ডাউনলোড না হয়ে SD Card এ ডাউনলোড হবে ফোন মেমোরি ফ্রি থাকবে।

৯। ক্যামেরা লোকেশন চেঞ্জ

আমি একটি বিষয় খেয়াল করছি অনেকেই ফোনের ক্যামেরা দিয়ে যে ছবি তোলা হয় সেই গুলোর ডিফল্ট লোকেশন হিসাবে ফোন মেমোরি রেখে দেয়। যার ফলে মেমোরি তে এই সব ফটো তো জায়গা দখল করে সেই সাথে অনেকেই ফোন রিস্টোর করার সময় ভুলে যায় যে ফোন মেমোরি তে ক্যামেরা দিয়ে তোলা ছবি থাকে। তাই ফোন ক্যামেরা ছবি সেভ হওয়ার ডিফল্ট লোকেশন টা SD Card করে দিন।

১০। স্ক্রিনশট ডিলিট

অনেকেই আছে প্রচুর স্ক্রিনশট নিয়ে থাকে ফোনে যা ঐ ফোন মেমোরি তেই  স্টোর হয়ে থাকে তাই স্ক্রিনশট গুলো ডিলিট করবেন যদি প্রয়োজন না হয়ে থাকে।

এই ছিল স্মার্টফোন বা অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলের ফোন মেমোরি ফুল হয়ে গেলে কি করবেন তার টিপস এন্ড ট্রিক। আশা করি ভালো লাগছে আপনাদের।

অন্যান্য আর্টিকেলঃ

ব্যাটারি সেভার অ্যাপ গুলো কি সত্যিই কাজ করে? ব্যাটারি সেভ করার উপায়।

উইন্ডোজ কম্পিউটারে কপি পেস্ট করার অসাধারণ একটি টিপস। 2020

ওয়েবক্যাম নেই? আপনার মোবাইল দিয়ে ওয়েবক্যাম বানিয়ে ফেলুন ।

আমাদের ফেসবুক পেজঃ  Projuktirkotha.com FB Page

error: Content is protected !!